• শনিবার   ১৬ অক্টোবর ২০২১ ||

  • কার্তিক ১ ১৪২৮

  • || ০৮ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩

সর্বশেষ:
দানাদার খাদ্য উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ বাংলাদেশ- প্রধানমন্ত্রী বিএনপিকে নিয়ে দুঃস্বপ্ন দেখার কোনো কারণ নেই- কাদের ইসলামে সব ধর্মের স্বাধীনতার কথা বলা হয়েছে: প্রধানমন্ত্রী জিডিপিতে ২০২৫ সালে সিঙ্গাপুরকে ছাড়াবে বাংলাদেশ বিশ্ব ক্ষুধা সূচকে ভারত-পাকিস্তানের চেয়ে এগিয়ে বাংলাদেশ

অন্যের সঙ্গে মেলামেশা করার সময় স্ত্রীকে হাতেনাতে ধরলেন স্বামী

প্রকাশিত: ১ অক্টোবর ২০২১  

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গীতে বিয়ের ২৭ বছর পর পরকীয়ার অভিযোগ উঠেছে এক গৃহবধূ বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় স্ত্রীর প্রেমিকের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা করেছেন ৫২ বছর বয়সী আফজাল হোসেন।

২৬ সেপ্টেম্বর ঠাকুরগাঁও সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আমলি আদালতে বাদীর হয়ে মামলাটি করেন আইনজীবী আবেদুর রহমান। মামলাটি আমলে নিয়ে পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) আগামী ৩০ নভেম্বরের মধ্যে তদন্ত প্রতিবেদন জমা দিতে নির্দেশ দিয়েছে আদালত।

আফজালের বাড়ি বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার বড়পলাশবাড়ী ইউনিয়নের গড়িয়ালী গ্রামে। তিনি পেশায় কৃষক। তাদের সংসারে তিন ছেলে রয়েছেন। এর মধ্যে দুজন বিবাহিত। আরেকজনের বয়স ১৭ বছর।

মামলা সূত্রে জানা গেছে, ২৭ বছর আগে একই গ্রামের আব্দুল কাদেরের মেয়ে তৈমা খাতুনকে বিয়ে করেন আফজাল। করোনাকালীন এলাকার বাইরে গিয়ে দিনমজুরির কাজ করতে থাকেন তিনি। এ সুযোগে তার স্ত্রীর সঙ্গে পরকীয়া সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন প্রতিবেশী জসিম উদ্দিন। তারা শারীরিকভাবে মেলামেশাও করেন। জসিমের সংসারে স্ত্রীসহ দুই সন্তান রয়েছে। বিষয়টি নিয়ে স্ত্রী তৈমা খাতুনকে একাধিকবার সতর্ক করেন আফজাল। এরপরও তিনি জসিমের সঙ্গে অবৈধ সম্পর্ক চালিয়ে যান।

এজাহারে আরো বলা হয়, ১৪ সেপ্টেম্বর ফজরের নামাজ পড়ার জন্য মসজিদে যান আফজাল। এ সময় প্রেমিক জসিমকে ঘরে ডেকে নেন তৈমা খাতুন। পরে তাদের আপত্তিকর অবস্থায় হাতেনাতে ধরেন আফজাল ও তার সন্তান। এরপর স্থানীয় সালিশে বিষয়টি আপসের আশ্বাসে তাদের ছাড়িয়ে নেয়া হয়। এ ঘটনায় আফজালকে হুমকি দেন জসিম ও তার লোকজন। পরে আইনজীবীকে দিয়ে আদালতে মামলা করেন আফজাল।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে বুধবার ও বৃহস্পতিবার দুবার গড়িয়ালী গ্রামে জসিম উদ্দিনের বাড়িতে গেলে তাকে পাওয়া যায়নি। এ বিষয়ে তার অসুস্থ বাবা কথা বলতে রাজি হননি। তবে স্ত্রী তৈমা খাতুন জানান, তিনি মামলার বিষয়টি জানেন না। এ বিষয়ে আর কোনো মন্তব্যও করতে চাননি তিনি।

মামলার আইনজীবী আবেদুর রহমান বলেন, আদালত মামলাটি আমলে নিয়ে পিবিআইকে তদন্তের নির্দেশ দিয়েছে। সুষ্ঠু তদন্ত হলে বাদীপক্ষ ন্যায়বিচার পাবেন বলে আশা করছি।

– দিনাজপুর দর্পণ নিউজ ডেস্ক –