• রোববার ২১ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ৫ ১৪৩১

  • || ১৩ মুহররম ১৪৪৬

সর্বশেষ:
সর্বোচ্চ আদালতের রায়ই আইন হিসেবে গণ্য হবে: জনপ্রশাসনমন্ত্রী। ২৫ জুলাই পর্যন্ত এইচএসসির সব পরীক্ষা স্থগিত।

এখন পুরুষের পাশাপাশি অগ্নিনির্বাপণে কাজ করবেন নারীরাও

প্রকাশিত: ২০ নভেম্বর ২০২৩  

দেশে ফায়ার সার্ভিসের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ফায়ার ফাইটার পদে যোগ দিয়েছেন ১৫ জন নারী। এখন থেকে পুরুষদের পাশাপাশি তারাও অগ্নি নির্বাপণে কাজ করবেন। এর আগে, ফায়ার সার্ভিসে অফিসার পদে নারী কর্মকর্তা যোগ দিলেও ফায়ার ফাইটার পদে কোনো নারী নিয়োগ পাননি।

শনিবার নারায়ণগঞ্জের পূর্বাচলে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স মাল্টিপারপাস ট্রেনিং কমপ্লেক্সে আনুষ্ঠানিকভাবে যোগ দেন এই ১৫ জন নারী ফায়ার ফাইটার। তারা হলেন- মাজেদা খাতুন, পাপিয়া খাতুন, পিংকি রায়, মাইমুনা আক্তার, রিমা খাতুন, মেহেরুন্নেছা মিম, আরজুমান আক্তার রিতা, মিশু আক্তার, ঝর্না রানী পাল, কাকলী খাতুন, ইসরাত জাহান ইতি, নাজমুন নাহার, ইয়াসমীন খাতুন, রোজিনা আকতার ও প্রিয়াংকা হালদার।

রোববার ফায়ার সার্ভিস সদর দফতরের মিডিয়া সেলের কর্মকর্তা শাহজাহান সিকদার জানান, যোগদানের পর ১৫ নারী ফায়ার ফাইটারকে মিরপুর ট্রেনিং কমপ্লেক্সে স্থানান্তর করা হয়েছে। অধিদফতরের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. মাইন উদ্দিন মিরপুর ট্রেনিং কমপ্লেক্সে তাদের স্বাগত জানান। পরে নবীন ফায়ার ফাইটাররা মহাপরিচালকের সঙ্গে ফটোসেশনে অংশ নেন। এ সময় অধিদফতরের দুজন পরিচালকসহ ট্রেনিং কমপ্লেক্সের অধ্যক্ষ ও উপাধ্যক্ষ উপস্থিত ছিলেন।

চলতি বছরের ২০ জুন ফায়ার ফাইটার নিয়োগের জন্য বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়। বিজ্ঞপ্তি অনুযায়ী, ফায়ার ফাইটার (নারী) পদে ২ হাজার ৭০৭ জন আবেদনকারীর মধ্যে প্রাথমিক যাচাই-বাছাই, শারীরিক যোগ্যতা ও মেডিকেল টেস্ট, লিখিত পরীক্ষা ও মৌখিক পরীক্ষার মাধ্যমে ১৫ জনকে চূড়ান্ত করা হয়। পরে তাদের নির্বাচিত করে নিয়োগপত্র জারি করা হয়। সিভিল সার্জনের সুস্থতার সনদপত্রসহ তারা শনিবার যোগ দেন।

উল্লেখ্য, লিঙ্গ বৈষম্য দূর করার লক্ষ্যে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নির্দেশনা অনুযায়ী, ‘ফায়ার ম্যান’ পদের নাম পরিবর্তন করে ‘ফায়ার ফাইটার’ নামকরণ করা হয়। এর ফলে এ পদে নারী-পুরুষ উভয়ের নিয়োগের সুযোগ তৈরি হয়েছে।

– দিনাজপুর দর্পণ নিউজ ডেস্ক –