• মঙ্গলবার   ১৯ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ৬ ১৪২৭

  • || ০৫ জমাদিউস সানি ১৪৪২

সর্বশেষ:
করোনা ভ্যাকসিনের সুরক্ষা অ্যাপ প্রস্তুত- পলক ভারতের ‘উপহার’ ২০ লাখ টিকা আসছে বুধবার শেখ হাসিনার নেতৃত্বেই দেশ হবে উন্নত-সমৃদ্ধ- রাষ্ট্রপতি কুড়িগ্রামে মুক্তির দুই দিন আগে কারাবন্দির মৃত্যু সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ নির্মূলে আরো ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান রাষ্ট্রপতির

এবার ফখরুলের চেয়ারে মওদুদ-মোশাররফের চোখ 

প্রকাশিত: ১২ জানুয়ারি ২০২১  

জাতীয় নির্বাচনে পরাজয়ের দুই বছর পার হলেও বিএনপির মহসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সঙ্গে স্থায়ী কমিটির সদস্য মওদুদ আহমেদ ও খন্দকার মোশাররফ হোসেনদের সম্পর্কের উন্নতি ঘটেনি।
মূলত নির্বাচনের আগে ঐক্যফ্রন্টের প্রতি অতিভক্তি এবং নির্বাচনের পর থেকে কেন কামাল হোসেন নিশ্চুপ, মওদুদ-মোশাররফপন্থী নেতাদের এমন প্রশ্নের জবাব দিতে দিতে মির্জা ফখরুল বিরক্ত বলে জানা যায়।

বিএনপির বিভিন্ন দায়িত্বশীল সূত্র জানিয়েছে, কারাগার থেকে খালেদা জিয়াকে বের করাসহ বিগত এক বছরে মির্জা ফখরুলের নেতৃত্বে বিএনপি কোনো কার্যকরী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারেনি। এমন ব্যর্থতা কুড়ে কুড়ে খাচ্ছে মহাসচিব মির্জা ফখরুলকে। তিনি নিজেও জানেন যে, তার চেয়ারের দিকে শকুনের চোখ পড়েছে। ফলে বিএনপির ভেতরে অবস্থান করা শত্রুদের কাছে ভিড়তে দিতে চাচ্ছে না তিনি।

জানা গেছে, মওদুদ-মোশাররফরা মির্জা ফখরুলকে মহাসচিব পদ থেকে সরিয়ে দিতে অনেক দূর অগ্রসর হয়েছেন। এরই মধ্যে মহাসচিবকে বাদ দিয়ে এক দফা আন্দোলনের ডাক দিয়েছেন তারা।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মির্জা ফখরুল জানান, এক দফা আন্দোলনের বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না। তবে তার নেতৃত্বে আরো বড় আন্দোলনের ডাক আসতে পারে।

বিএনপির এমন রাজনীতি নিতান্তই হতাশাজনক আখ্যা দিয়ে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক দলের স্থায়ী কমিটির অপর সদস্য বলেন, মওদুদ আহমেদ ও খন্দকার মোশাররফের দেয়া আন্দোলনের ডাক ও তার বিপরীতে মির্জা ফখরুলের আন্দোলনকে মূলত বিএনপির বিরুদ্ধে বিএনপির আন্দোলন বলে অভিহিত করা যায়। আশা করছি, বিএনপি নেতারা দলের জন্য নিজের স্বার্থকে বড় করে না দেখে সামনে এগিয়ে যাবার চেষ্টা করবেন। নতুবা বিএনপি নামক দলটি আর বেশিদিন টিকতে পারবে না।

– দিনাজপুর দর্পণ নিউজ ডেস্ক –