• রোববার ২১ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ৫ ১৪৩১

  • || ১৩ মুহররম ১৪৪৬

সর্বশেষ:
সর্বোচ্চ আদালতের রায়ই আইন হিসেবে গণ্য হবে: জনপ্রশাসনমন্ত্রী। ২৫ জুলাই পর্যন্ত এইচএসসির সব পরীক্ষা স্থগিত।

গাজায় জাতিসংঘের স্কুলে ইসরায়েলি হামলা, নিহত ১৬

প্রকাশিত: ৭ জুলাই ২০২৪  

ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজায় জাতিসংঘ পরিচালিত একটি স্কুলে ইসরায়েলি বোমা হামলায় অন্তত ১৬ জন নিহত হয়েছেন। এ হামলায় আহত হয়েছে আরো অন্তত ৫০ জন। জানা গেছে, ভবনটিতে প্রায় সাত হাজার  বাস্তুচ্যুত ফিলিস্তিনি আশ্রয় নিয়েছিল।

গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, স্কুলে হামলায় অন্তত ১৬ জন নিহত এবং ৫০ জনের বেশি আহত হয়েছে। গাজা সিভিল ইমার্জেন্সি সার্ভিসের মুখপাত্র মাহমুদ বাসাল বলেছেন, আহতদের মধ্যে অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় মৃতের সংখ্যা বাড়তে পারে।

এক বিবৃতিতে মাহমুদ বাসাল বলেছেন, স্কুলে হামলার অর্থ হলো গাজার কোনো জায়গা নিরাপদ নয়। যদিও এসব ফিলিস্তিনি পরিবার হামলা থেকে বাঁচতেই ঘরবাড়ি ছেড়ে স্কুলে আশ্রয় নিয়েছিল।

ঘটনাস্থলের একটি ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে, ধুলো ও ধ্বংসস্তূপপূর্ণ রাস্তায় কয়েকটি শিশু ও প্রাপ্তবয়স্ক ব্যক্তি চিৎকার করছেন এবং তারা আহতদের সহায়তার জন্য দৌড়ে যাচ্ছেন।

একটি স্থানীয় সূত্র জানিয়েছে, ইসরায়েলি বাহিনী একটি কক্ষ লক্ষ্য করে হামলা চালায়। তাদের অভিযোগ হামাস সদস্যরা ওই কক্ষ ব্যবহার করছেন। তবে, এ অভিযোগের সত্যতা যাচাই করতে পারেনি বিবিসি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বিবিসিকে জানিয়েছে, একটি ব্যস্ত বাজারের কাছে অবস্থিত স্কুলের উপরের তলাগুলোকে লক্ষ্য করে হামলা চালানো হয়েছে।

গাজা উপত্যকার আটটি ঐতিহাসিক শরণার্থী শিবিরের একটি হলো আল-নুসিরাত। এই শরণার্থী শিবির নিশানা করে সম্প্রতি হামলা জোরদার করেছে ইসরায়েলি বাহিনী। এর আগে এই শরণার্থী শিবিরে হামলায় অন্তত ১০ জন নিহত এবং আরো অনেকে আহত হয়েছিল।

গত ৭ অক্টোবর দক্ষিণ ইসরায়েলে প্রবেশ করে নজিরবিহীন হামলা চালিয়ে ১২০০ ইসরায়েলিকে হত্যা এবং প্রায় ২৫০ জন ইসরায়েলি ও বিদেশি নাগরিককে বন্দি করে গাজায় নিয়ে আসে হামাস। একই দিন হামাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করে গাজায় নির্বিচারে বোমা হামলা করে আসছে ইসরায়েল। ইতিমধ্যে ছোট্ট এই উপত্যকায় ইসরায়েলের হামলায় ৩৮ হাজারের বেশি ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছে।

– দিনাজপুর দর্পণ নিউজ ডেস্ক –