• মঙ্গলবার ২৮ মে ২০২৪ ||

  • জ্যৈষ্ঠ ১৪ ১৪৩১

  • || ১৯ জ্বিলকদ ১৪৪৫

চিরিরবন্দরে ঈদুল ফিতর উদযাপন   

প্রকাশিত: ১০ এপ্রিল ২০২৪  

সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে দিনাজপুরের প্রায় দুই হাজার মুসল্লি পবিত্র ঈদুল ফিতরের  নামাজ আদায় করেছেন। বুধবার (১০এপ্রিল) জেলার ১৩টি উপজেলায় ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়।

বুধবার সকাল ৯টায় চিরিরবন্দর উপজেলার পূর্ব সাঁতাড়া রাবার ড্যাম এলাকায় চিরি নদী ঈদগাহ মাঠে শতাধিক মুসল্লি সৌদির সঙ্গে মিল রেখে পবিত্র ঈদুল ফিতরের নামাজ আদায় করেন। এ ছাড়া দিনাজপুর শহর, চিরিরবন্দর, বিরল, কাহারোল, বিরামপুর উপজেলাসহ বেশ কিছু এলাকায় সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে পবিত্র ঈদুল ফিতর উদযাপন করেছে কয়েক শ পরিবার।ফুলবাড়ি উপজেলা থেকে ঈদের নামাজ পড়তে আসা ডা. এস এম ওয়ালিউর ইসলাম বলেন, ২০০৯ সাল থেকে সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে রোজা ও ঈদ পালন করি। একদিন আগেই ঈদের আনন্দ উপভোগ করতে পেরে ভালোই লাগছে।

চিরি নদী ঈদগাহ মাঠের ইমাম মোহাম্মদ আব্দুল আলিম বলেন, আমরা বিগত কয়েক বছর ধরে সৌদির সঙ্গে মিল রেখে রোজা রাখি ও ঈদ উদযাপন করি। কেননা রাসুল (সা) বলেছেন, তোমরা চাঁদ দেখে রোজা রাখো আর চাঁদ দেখে রোজা ছাড়ি। আমরা মনে করি, পৃথিবীর যে কোনো প্রান্তে ঈদের চাঁদ উঠলে ঈদের নামায পড়া যাবে।

দিনাজপুর ঈদ উদযাপন কমিটির সভাপতি মোকবুল হোসেন জানান, এবার জেলার ১৩ থানায় প্রায় ৫০টি ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হচ্ছে। প্রতিটি জামাতে প্রায় শতাধিক মুসল্লি অংশ নিয়েছেন।

চিরিরবন্দর থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল হাসনাত খান বলেন, চিরিরবন্দরে সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে সকাল ৯টায় একটি ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হয়েছে। সেখানে তাদের নিরাপত্তায় পুলিশ নিয়োজিত ছিল।উল্লেখ্য, দিনাজপুর জেলায় ২০০৭ সাল থেকে সৌদি আরবের সঙ্গে মিল রেখে ঈদের নামাজ পড়ার রীতি শুরু হয়। প্রথম দিকে মুসল্লির সংখ্যা কম থাকলেও প্রতি বছর তা বাড়ছে।

– দিনাজপুর দর্পণ নিউজ ডেস্ক –