• রোববার ২১ জুলাই ২০২৪ ||

  • শ্রাবণ ৫ ১৪৩১

  • || ১৩ মুহররম ১৪৪৬

সর্বশেষ:
সর্বোচ্চ আদালতের রায়ই আইন হিসেবে গণ্য হবে: জনপ্রশাসনমন্ত্রী। ২৫ জুলাই পর্যন্ত এইচএসসির সব পরীক্ষা স্থগিত।

চিরিরবন্দরে বাসের ধাক্কায় নারী নিহত  

প্রকাশিত: ২৫ জুন ২০২৪  

স্বামীর বাড়ি থেকে পিত্রালয়ে যাওয়ার পথে দিনাজপুর-রংপুর মহাসড়কের চিরিরবন্দরে বাসের ধাক্কায় বিউটি বেগম নামে গৃহবধূ এক নারী নিহত ও তার আড়াই বছরের শিশু পুত্র রায়হান আলী এবং ব্যাটারি চালিত রিকশাভ্যানের চালক হাফিজুল ইসলাম গুরুতর আহত হয়েছে। 

এ দুর্ঘটনায় স্থানীয় লোকজন ক্ষুদ্ধ হয়ে প্রায় দেড় ঘন্টাব্যাপি মহাসড়ক অবরোধ করে রাখেন। পরে চিরিরবন্দর পুলিশের হস্তক্ষেপে মহাসড়কে যান চলাচল স্বাভাবিক হয়।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে দিনাজপুর-রংপুর মহাসড়কের চিরিরবন্দর উপজেলার ফতেজংপুর ইউনিয়নের মন্টুশাহর মোড় নামক স্থানে এ সড়ক দূর্ঘটনাটি ঘটেছে। 

নিহত বিউটি বেগম (২৩) চিরিরবন্দর উপজেলার সাঁইতাড়া ইউপির খোচনা গ্রামের রবিউল ইসলাম ওরফে আপেলের স্ত্রী। 
গুরুতর আহত শিশু রায়হান আলী চিরিরবন্দর উপজেলার সাঁইতাড়া ইউপির খোচনা গ্রামের রবিউল ইসলাম ওরফে আপেলের ছেলে এবং আহত রিকশাভ্যানচালক হাফিজুল ইসলাম চিরিরবন্দর উপজেলার সাহাপুর গ্রামের আফজাল হোসেনের ছেলে। 

স্থানীয়রা জানায়, মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে চিরিরবন্দরের রানীরবন্দর থেকে ব্যাটারিচালিত রিকশাভ্যান যোগে বিউটি বেগম তার শিশু পুত্র রায়হান আলীকে সঙ্গে নিয়ে উপজেলার ক্যানেলের বাজারের পিত্রালয়ে যাচ্ছিলেন। যাওয়ার পথে চিরিরবন্দরের ফতেজংপুর ইউপির মন্টুশাহর মোড় নামক স্থানে পৌঁছলে বিপরীতদিক থেকে আসা দ্রুতগামী একটি বাস রিকশাভ্যানটিকে চাপা দিয়ে পালিয়ে যায়। ফলে বাসের ধাক্কায় রিকশাভ্যানটি দুমড়ে-মুচড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই রিকশাভ্যানের আরোহী বিউটি বেগম মারা যান এবং শিশু পুত্র রায়হান আলীসহ রিকশাভ্যানচালক হাফিজুল ইসলাম গুরুতর আহত হয়। এসময় স্থানীয় লোকজন ঘটনাস্থল থেকে আহতদের উদ্ধার করে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যান। 

দশমাইল হাইওয়ে থানা পুলিশের দায়িত্বরত এস আই মো. মোস্তাফিজুর রহমান ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আপত্তি না থাকায় মরদেহ পরিবারের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে। 

– দিনাজপুর দর্পণ নিউজ ডেস্ক –