• বুধবার   ০১ ডিসেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৭ ১৪২৮

  • || ২৪ রবিউস সানি ১৪৪৩

সর্বশেষ:
রাস্তায় নেমে গাড়ি ভাঙচুর ছাত্রদের কাজ নয়: প্রধানমন্ত্রী সব মানুষের ডিজিটাল নিরাপত্তার জন্যই আইন: তথ্যমন্ত্রী আখাউড়া-আগরতলা রেল রুট পুনরায় চালুর ওপর গুরুত্বারোপ জানাজা শেষ করেই পাকিস্তানি বাহিনীকে ধাওয়া করি দেশে আসতে প্রবাসীদের জন্য নতুন নির্দেশনা

ঠাকুরগাঁওয়ে জমি নিয়ে বিরোধের জেরে নিজের মায়ের পা ভেঙে দিল ছেলে   

প্রকাশিত: ২৩ নভেম্বর ২০২১  

জমি নিয়ে বিরোধের জেরে নিজের মায়ের পা ভেঙে দিয়েছে এক সন্তান। পেশায় তিনি আবার একজন পুরোহিত। ব্রাহ্মণ পরিবারে এমন ঘৃণ্য ঘটনায় জেলা জুড়ে নিন্দার ঝড় উঠেছে। চাঞ্চল্যকর এ ঘটনাটি ঘটেছে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার বেগুনবাড়ী ইউনিয়নের পাইকপাড়া গ্রামে। এ ঘটনায় আহত মা শান্তি চক্রবর্তী বাদী হয়ে ছেলে মনি চক্রবর্তীসহ ৫ জনের নামে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।

মামলা সূত্রে জানা যায়, গত ৮ বছর আগে শান্তি চক্রবর্তীর ছেলে কেশব চক্রবর্তী তার পৈতৃক সম্পত্তির সাড়ে তিন বিঘা জমি মায়ের নামে দানপত্র করে দেন। সম্প্রতি জমির ভাগ-বাটোয়ারা নিয়ে নিয়ে বড় ছেলে মনি চক্রবর্তী ও সৎ ছেলে বিনয় চক্রবর্তীর সঙ্গে তাদের মায়ের ঝগড়া-বিবাদ লাগে। এ নিয়ে ১৬ নভেম্বর জমি জবর দখলে নেওয়ার চেষ্টা করলে শান্তি রানী বাধা দিলে তাকে মারপিট করে গুরুতর আহত করা হয়। স্থানীয়রা এগিয়ে আসলে মনি চক্রবর্তীসহ অন্যান্যরা পালিয়ে যায়। পরে গুরুতর আহত অবস্থায় শান্তি চক্রবর্তীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
 
এ ঘটনায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মা শান্তি চক্রবর্তী বলেন, আমরা ব্রাহ্মণ জাতি, আমরা মানুষদের ন্যায়-অন্যায় জ্ঞান দান করি আর আমার ছেলে সামান্য জমির লোভে লাঠি দিয়ে পিটিয়ে আমার পা ভেঙে দিয়েছে। আমি তার শাস্তি দাবি করছি।

অভিযুক্ত মনি চক্রবর্তীর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, আমার জমির সমস্যা, আমি দুই বছর থেকে কোথাও বিচার পাচ্ছি না, তাই এসব করেছি। তবে মাকে পিটিয়ে পা ভেঙে ফেলার কথা এড়িয়ে যান তিনি।

সদর থানার ওসি তানভিরুল ইসলামের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, এ ঘটনায় ৫ জনের নাম উল্লেখ করে একটি মামলা হয়েছে। আসামিদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

– দিনাজপুর দর্পণ নিউজ ডেস্ক –