ব্রেকিং:
করোনায় আক্রান্ত হয়ে রংপুর বিভাগের কুড়িগ্রামে আরো একজনের মৃত্যু। রংপুর নগরীতে করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে জীবাণুনাশক স্প্রে করছে সিটি কর্পোরেশন।
  • বৃহস্পতিবার   ১৫ এপ্রিল ২০২১ ||

  • বৈশাখ ২ ১৪২৮

  • || ০২ রমজান ১৪৪২

সর্বশেষ:
রংপুর নগরীর শাপলা চত্বর এলাকায় র‌্যাব-১৩ এর উদ্যোগে করোনা সংক্রমণ রোধে জনসচেতনতামূলক প্রচারণা চলছে। করোনাভাইরাস সংক্রমণ মোকাবিলায় সারাদেশে দ্বিতীয় দিনের মতো সর্বাত্মক লকডাউন চলছে। প্রবাসী কর্মীদের জন্য বিশেষ ফ্লাইটের ব্যবস্থা করছে সরকার বসুন্ধরার হাসপাতাল ‘উধাও’ হয়নি, বণ্টন হয়েছে- স্বাস্থ্যের ডিজি রংপুরসহ দেশের তিন বিভাগ ও দুই জেলার একাধিক স্থানে কালবৈশাখী ঝড়ের আভাস দিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। সর্বাত্মক লকডাউনের দ্বিতীয় দিনেও রংপুরে রাস্তার মোড়ে মোড়ে বসেছে পুলিশের চেকপোস্ট।

দিনাজপুরে সব ধরনের জনসমাবেশ নিষিদ্ধ 

প্রকাশিত: ১ এপ্রিল ২০২১  

করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধি পাওয়ায় আবারও দিনাজপুরে রাজনৈতিক, সামাজিক, ধর্মীয়সহ সব জনসমাবেশ আপাতত নিষিদ্ধ করা হয়েছে। নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে জেলার সব বিনোদন কেন্দ্র, কমিউনিটি সেন্টার, পর্যটন এলাকা, সিনেমা হল ও কোচিং সেন্টার পরিচালনার ওপর।

সেই সঙ্গে দিনাজপুর শহরের কাঁচাবাজার বাহাদুর বাজার থেকে আবারও গোর-এ শহীদ বড় ময়দানে স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার দিনাজপুর জেলা করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধবিষয়ক কমিটির এক জরুরি সভায় এসব সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

দিনাজপুরের সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুছ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। দিনাজপুর জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এই সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক খালেদ মোহাম্মদ জাকি। মঙ্গলবার বিকাল ৪টা থেকে সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত এই সভায় দিনাজপুরের সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুছ দিনাজপুরে করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির চিত্র তুলে ধরেন। এছাড়াও সভায় করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) সংক্রমণের বিদ্যমান পরিস্থিতিতে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয় থেকে গত ২৯ মার্চের প্রজ্ঞাপনে দেওয়া ১৮ দফা নির্দেশনা প্রতিপালন নিয়ে আলোচনা করা হয়। এরপর করোনা সংক্রমণ প্রতিরোধে সর্বসম্মতিক্রমে বিভিন্ন সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

সভায় উপস্থিত ছিলেন, দিনাজপুরের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন, দিনাজপুর জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুল ইমাম চৌধুরী, দিনাজপুরের সিভিল সার্জন ডা. মো. আব্দুল কুদ্দুছ, জেলা প্রশাসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাবৃন্দ, দিনাজপুর পৌরসভার মেয়র সৈয়দ জাহাঙ্গীর আলম, চিকিত্সকবৃন্দ, দিনাজপুর জেলা শিক্ষা অফিসার মো. রফিকুল ইসলামসহ জেলার সব বিভাগের কর্মকর্তাবৃন্দ, দিনাজপুর শিল্প ও বণিক সমিতির নেতৃবৃন্দ, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আবুল কালাম আজাদ, সামাজিক সংগঠক মোসাদ্দেক হোসেন, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ ও সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা। উল্লেখ্য, দিনাজপুরে সম্প্রতি আবারও করোনা সংক্রমণ অস্বাভাবিক হারে বাড়তে শুরু করেছে। বর্তমানে দিনাজপুর জেলায় করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে ৯৮ জনে উন্নীত হয়েছে। এছাড়াও গত ২৪ ঘণ্টায় দিনাজপুরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে আরো দুই জন। এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্ত মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১০৩ জনে।

– দিনাজপুর দর্পণ নিউজ ডেস্ক –