• শনিবার   ২৮ জানুয়ারি ২০২৩ ||

  • মাঘ ১৫ ১৪২৯

  • || ০৫ রজব ১৪৪৪

সর্বশেষ:
বৃষ্টি নামলেই শীত, লঘুচাপের ইঙ্গিত দেশে নতুন সুপারফুড ‘সাউ কিনোয়া-১’ ‘আগামী নির্বাচন সুষ্ঠু করতে সরকার সব ধরনের প্রস্তুতি নিচ্ছে’ স্বল্প খরচে বিদ্যুৎ উৎপাদনের লক্ষ্য গ্রহণ করতে হবে জমি নিয়ে সংঘর্ষে দুই যুবক নিহত: ঘটনা জেরে ৩০ বাড়িতে আগুন

নাগেশ্বরীতে সালিশ চলাকালে চেয়ারম্যানকে মারধর, গ্রেফতার ৩

প্রকাশিত: ২৫ জানুয়ারি ২০২৩  

নাগেশ্বরীতে সালিশ চলাকালে চেয়ারম্যানকে মারধর, গ্রেফতার ৩               
কুড়িগ্রামের নাগেশ্বরী উপজেলার বামনডাঙ্গা ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান অসাদুজ্জামান রনিকে মারধরের মামলায় এজাহারনামীয় তিন আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার দুপুরের দিকে অভিযান চালিয়ে তাদের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, ওই ইউনিয়নের কুটিবামনডাঙ্গা এলাকার শামছুল ব্যাপারীর ছেলে জেমস ব্যাপারী, মালিয়ানী এলাকার মজিবর ব্যাপারীর ছেলে মিলন ব্যাপারী ও মৃত হাফেজ মুন্সীর ছেলে আখলাদ হোসেন।

এজাহারমূলে পুলিশ জানায়, সোমবার রাতে বন্ধু বাজারে চেয়ারম্যানের নিজস্ব অফিসে সালিশ চলছিল। এ সময় চেয়ারম্যান আসাদুজ্জামান রনির ওপর হামলা চালান সাবেক চেয়ারম্যান আমজাদ হোসেনের ছোট ভাই সৈয়দ আলী ও নুরুল ইসলাম টুংকুসহ মুখোশ পরিহিত ছয় থেকে সাতজন। তাদের রডের আঘাতে চেয়ারম্যানের মাথা ফেটে যায়। পরে উপস্থিত লোকজন গুরুতর আহত অবস্থায় চেয়ারম্যানকে নাগেশ্বরী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। রাতে সেখান থেকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়।

এ ঘটনায় রাতে চেয়ারম্যান রনির পিতা মো. শাহ আলম বাদী হয়ে সাবেক চেয়ারম্যানসহ ১৫ জনকে আসামি করে নাগেশ্বরী থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার বাদী দাবি করেছেন, তার ছেলেকে হত্যার উদ্দেশে হামলা চালানো হয়েছে। 

নাগেশ্বরী থানার ওসি নবীউল হাসান বলেন, আসামিদের ধরতে বিভিন্ন-স্থানে অভিযান চালানোর পর দুপুরের দিকে তাদের বাড়ি থেকে তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়। আদালতের মাধ্যমে তাদেরকে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। 

– দিনাজপুর দর্পণ নিউজ ডেস্ক –