• বৃহস্পতিবার   ২৯ অক্টোবর ২০২০ ||

  • কার্তিক ১৪ ১৪২৭

  • || ১২ রবিউল আউয়াল ১৪৪২

সর্বশেষ:
আত্মরক্ষার জন্য শক্তিশালী সশস্ত্রবাহিনী গড়বে সরকার: প্রধানমন্ত্রী নিজেদের ব্যর্থতা ঢাকতে সরকারের উপর দোষ চাপাচ্ছে বিএনপি: কাদের ৯৫ হাজার নতুন শ্রেণিকক্ষ পাবে মাধ্যমিকের শিক্ষার্থীরা মুজিববর্ষ উদযাপনে বাংলাদেশে আসবেন এরদোয়ান ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর মন্তব্যে বিরক্ত বিএনপি

নীলফামারীতে ৯ বছরের সীমানা জটিলতার অবসান 

প্রকাশিত: ৫ অক্টোবর ২০২০  

দীর্ঘ ৯ বছর সীমানা জটিলতার মামলায় আটকে থাকা নীলফামারী সদর উপজেলার ৫নং টুপামারী ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন আগামী ২৯ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হবে। মেয়াদোত্তীর্ণ এই ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর সাধারণ ভোটার, স্থানীয় নেতা ও সংগঠকদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা বিরাজ করছে।


নীলফামারী সদর উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা ও রিটার্নিং অফিসার আফতাব উজ্জামান জানান, ‘নির্বাচন কমিশন কর্তৃক গত ২৬ সেপ্টেম্বর ঘোষিত তফসিল অনুসারে মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ তারিখ ছিল ৪ অক্টোবর, মনোনয়নপত্র যাচাই-বাছাই ৫ অক্টোবর, প্রার্থিতা প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ১২ অক্টোবর এবং ২৯ অক্টোবর ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। অত্র ইউনিয়নের ৯টি ওয়ার্ডে মোট ভোটার ২২ হাজার ৪০০ জন।

তিনি জানান, করোনাকালীন ভোটগ্রহণ কার্যক্রম সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে অনুষ্ঠিত হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, গতকাল রোববার পর্যন্ত চেয়ারম্যান পদে ৪ জন, সংরক্ষিত নারী সদস্য পদে ১৭ জন ও সাধারণ সদস্য পদে ৪২ জন মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। এর মধ্যে বর্তমান চেয়ারম্যান মুসরত আলী ফকির ও তার ছেলে মাসুম ফকির উভয়েই স্বতন্ত্র পদপ্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন দাখিল করেছেন।

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী আবুল কাশেম শাহ জানান, সীমানা জটিলতার মামলায় আটকে থাকা ভোটের অধিকার ফিরে পেয়ে এলাকার জনগণের মাঝে আনন্দ বিরাজ করছে। সাধারণ মানুষ শেখ হাসিনার প্রতি ভরসা রাখবেন। ইনশাআল্লাহ নৌকা প্রতীকের জয় হবে।

উল্লেখ্য, ২০১১ সালের ৫ জুন টুপামারী ইউনিয়নের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। সীমানা জটিলতার মামলায় ভোটগ্রহণ স্থগিত থাকায় নির্বাচন চেয়ে সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আবুল কাশেম শাহ উচ্চ আদালতে একটি রিট করেছিলেন। রিটে উচ্চ আদালত টুপামারী ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা ও ভোটগ্রহণের জন্য আদেশ দেন।

সংশ্লিষ্ট সূত্র মতে, সীমানা জটিলতার কারণে জেলা সদরের খোকশাবাড়ি ইউপি, কুন্দপুকুর ইউপি ও ইটাখোলা ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন স্থগিত রয়েছে। এই তিন ইউনিয়নের নির্বাচন সর্বশেষ অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০১১ সালের ৫ জুন। এছাড়াও সীমানা জটিলতার মামলায় দীর্ঘদিন ধরে নীলফামারী পৌরসভার ভোট বন্ধ রয়েছে।

– দিনাজপুর দর্পণ নিউজ ডেস্ক –