ব্রেকিং:
বিশ্বব্যাপী চলমান মহামারি করোনার কারণে দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের চলমান ছুটি আগামী ৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত বাড়াল সরকার। তবে কওমি মাদ্রাসা এই ছুটির আওতায় থাকবে না
  • শুক্রবার   ১৫ জানুয়ারি ২০২১ ||

  • মাঘ ২ ১৪২৭

  • || ০১ জমাদিউস সানি ১৪৪২

সর্বশেষ:
মুজিববর্ষ উপলক্ষে বাড়ী পাচ্ছে কিশোরগঞ্জের ১৪০টি পরিবার উলিপুর পৌর নির্বাচন: ‘উন্নয়নের স্বার্থে নৌকায় ভোট দেয়ার আহ্বান’ নীলফামারীতে সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের মাঝে কম্বল বিতরণ কুড়িগ্রামের চরাঞ্চলে শীতবস্ত্র বিতরণ ত্যাগী নেতাকর্মীদের দলে মূল্যায়ন করতে হবে: ড. হাছান মাহমুদ

বাংলাদেশ হবে সাইবার সিকিউরিটির কেন্দ্র- পলক

প্রকাশিত: ৬ জানুয়ারি ২০২১  

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, সারাবিশ্বের কাছে সাইবার সিকিউরিটির ক্ষেত্রে বাংলাদেশ হবে একটি হাব (কেন্দ্রবিন্দু)। বাংলাদেশের ব্যাংকিং, স্বাস্থ্য, সিভিল অ্যাভিয়েশনসহ সব জায়গায় যেন সাইবার নিরাপত্তা আমাদের ছেলেমেয়েরাই দিতে পারে এজন্য একটা সাইবার সিকিউরিটি এক্সপার্ট গ্রুপ তৈরি করার জন্য আমরা বিশেষ উদ্যোগ নেব।

মঙ্গলবার (৫ জানুয়ারি) রাজধানীর শেরেবাংলা নগর আইসিটি টাওয়ারে আয়োজিত ‘জাতীয় সাইবার ড্রিল-২০২০’ পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় পলক বলেন, ‘সারাবিশ্বে আমাদের এক কোটি মানুষ কাজ করে। তারা কায়িক শ্রম দিয়ে বিশ মিলিয়ন ডলার পাঠায়। এই এক কোটি মানুষকে যদি আমরা আগামী ৪১ সালের মধ্যে আইটি বা ডিজিটাল সেক্টরে দক্ষ করতে পারি; তাহলে কত’শ মিলিয়ন ডলার আয় হতে পারে! তার জন্য কিন্তু বিদেশে যেতে হবে না। মিডল ইস্ট যেতে হবে না। ইউরোপ-আমেরিকা যেতে হবে না।’

তিনি বলেন, ‘বিশ্বের এমন কিছু ছোট ছোট দেশ আছে, যাদের জনসংখ্যাই ১০ থেকে ১৫ লাখ। ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডিংয়ের জন্য সারাবিশ্বের উন্নত শক্তিশালী দেশগুলো তাদেরকে হায়ার করছে। তাদের কোম্পানিকে হায়ার করছে। ব্যক্তি পর্যায়ের লোকদের হায়ার করছে। মিলিয়ন মিলিয়ন ডলার দিয়ে তাদের হায়ার করছে।’

তিনি বলেন, ‘দেশের নিরাপত্তার জন্য যেমন সৈন্য দরকার তেমনি দেশের ইন্টারনেটকে হ্যাকারদের থেকে রক্ষা করার জন্য সাইবার সিকিউরিটি দরকার। সাইবার সিকিউরিটি নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে না পারলে দেশে অর্থনীতি স্থিতিশীল করা যাবে না।’

– দিনাজপুর দর্পণ নিউজ ডেস্ক –