• বুধবার   ০১ ডিসেম্বর ২০২১ ||

  • অগ্রাহায়ণ ১৭ ১৪২৮

  • || ২৪ রবিউস সানি ১৪৪৩

সর্বশেষ:
রাস্তায় নেমে গাড়ি ভাঙচুর ছাত্রদের কাজ নয়: প্রধানমন্ত্রী সব মানুষের ডিজিটাল নিরাপত্তার জন্যই আইন: তথ্যমন্ত্রী আখাউড়া-আগরতলা রেল রুট পুনরায় চালুর ওপর গুরুত্বারোপ জানাজা শেষ করেই পাকিস্তানি বাহিনীকে ধাওয়া করি দেশে আসতে প্রবাসীদের জন্য নতুন নির্দেশনা

হিলি স্থলবন্দরে আমদানি স্বাভাবিক থাকায় ক্রমেই কমছে পেঁয়াজের দাম 

প্রকাশিত: ৩১ অক্টোবর ২০২১  

দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে ভারতীয় পেঁয়াজ আমদানি স্বাভাবিক থাকায় ক্রমেই কমছে পেঁয়াজের দাম। প্রকারভেদে কেজিপ্রতি সাত থেকে আট টাকা কমেছে। বর্তমানে হিলির আড়তগুলোতে ২৫ থেকে ২৬ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। খুচরা বাজারে ২৮ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। পাঁচদিন আগেও বিক্রি হয়েছে ৩৫ থেকে ৩৮ টাকা দরে। রোববার (৩১ অক্টোবর) হিলি স্থলবন্দর এলাকার বাজার ঘুরে এ তথ্য পাওয়া যায়।

হিলি কাস্টমসের তথ্যমতে, চলতি সপ্তাহের শনিবার (৩০ অক্টোবর) প্রথম কর্মদিবসে ভারতীয় ১৩টি ট্রাকে ৩৫৮ মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে ।

খুচরা বাজারে পেঁয়াজ কিনতে আসা আনোয়ার হোসেন বলেন, আজ ২৮ টাকা দরে পাঁচ কেজি পেঁয়াজ কিনলাম। এখন কিছুটা কম দামে বিক্রি হচ্ছে। কয়েকদিন আগেও এ বাজারে ৩৫ থেকে ৪০ টাকা কেজি দরে ভারতীয় পেঁয়াজ কিনতে হয়েছে।

হিলি বাজারের পাইকারি পেঁয়াজ বিক্রেতা ফিরোজ বলেন, আমরা আড়ত থেকে ২৫ থেকে ২৬ টাকা দরে কিনে খুচরা বাজারে ২৮ টাকা কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি করছি। তবে দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৫৫ টাকা কেজি। তিনি বলেন, এভাবে আমদানি ঠিক থাকলে ভারতীয় পেঁয়াজের দাম ক্রেতাদের হাতের নাগালেই থাকবে।

হিলি স্থলবন্দর আমদানি-রপ্তানি গ্রুপের সভাপতি হারুন-উর রশিদ বলেন, দেশের বাজারে পেঁয়াজের দাম স্বাভাবিক রাখতে বেশি বেশি এলসি করেছেন হিলি বন্দরের পেঁয়াজ আমদানিকারকরা। চাহিদার তুলনায় আমদানি বাড়ায় দাম কমতে শুরু করেছে। ভারতের অভ্যন্তরে পাইপলাইনে আরও প্রচুর পরিমাণ পেঁয়াজ বাংলাদেশে প্রবেশের অপেক্ষায় রয়েছে। সেগুলো এলে দাম আরও কমবে।

– দিনাজপুর দর্পণ নিউজ ডেস্ক –